ঢাকা, Monday, 20 May, 2024

santoবর্তমান সরকারের আমি কোন ভুল-ভ্রান্তি দেখিনা। যারাই সরকার দলে থাকে তাদের মিথ্যাচার,তাদের দুর্নীতি,তাদের স্বজনপ্রীতি,তাদের ভুলগুলো ধরিয়ে দেয়ার দায়িত্ব থাকে বিরোধী দলের কিন্তু বাংলাদেশের চিত্র এখন বড়ই বেমানান।

২০১৪,৫ জানুয়ারিতে ৫০% অধিক আসনে বিনা ভোটে নির্বাচিত হওয়া আজকের সরকার মোটেও অসাংবিধানিক নয় কিন্তু বাস্তবিক অর্থে জনগণের সরকারও নয়।বর্তমান সরকার বাংলাদেশের অন্যতম প্রধান রাজনৈতিক দল বিএনপি’র লাগামহীন ভুলের ফসল।আসলে যে দেশে পোশাক পরিবর্তনের মতো সংবিধান পরিবর্তন করা হয় সে দেশে সংবিধানের দোহাই দিয়ে কোমর বেঁধে হাঁটু গেঁড়ে বসে থাকা যায়।

আর এই সাংবিধানিক কূটচালে সয়লাব হয়ে গেছে বাংলাদেশ সরকার জনগনের দাসত্ব করে।আমরা সবাই একগুঁয়ে। সভা-সমাবেশ, সেমিনারে যেখানে-সেখানে মাইকটা হাতে পেলেই আমরা একই বুলি আউড়ে বেড়াই অনির্বাচিত সরকার, স্বৈরশাসক সরকার, অবৈধ সরকার এই আওয়ামী লীগ সরকার।এসব বলে সরকারের সমালোচনা করি কিন্তু একবারও কি আমরা ভেবে দেখেছি এই সরকারের বর্তমানে ক্ষমতায় থাকা কতটুকু তাদের নিজেদের রাজনৈতিক প্রজ্ঞার পরিচয় বহন করে এবং বিএনপি’র কতটুকু রাজনৈতিক অজ্ঞতার পরিচয় বহন করে। না আমরা তা ভাবিনি। কারন আমরা কেউই রাজনীতি করি না আমরা দল নীতি করি, ভাই চর্চা করি। এক কথায় যাকে বলে দালালি করে চোলি।আন্দোলনের নামে জনজীবন বিপর্যস্ত করার নাম কখনোই রাজনীতি নয়।আমি হরতাল নাশকতায় বিশ্বাসী নই তবে সাধারণ জনমানুষের মতামতকে প্রাধান্য দিয়ে সেই সমস্ত মানুষগুলোকে সাথে আমি মানববন্ধনের পক্ষপাতী।

যারা সত্যিকার জাতীয়তাবাদী শক্তিকে ভালোবাসে তারা কখনোই দল কানা নয়,ভাইনীতি করেনা। তারা শহীদ জিয়ার আদর্শের রাজনীতি করে।একটা দলের ভুল থাকতে পারে কিন্তু আদর্শের কখনো কোন ভুল থাকে না।আর বর্তমানে বিএনপি সেই আদর্শের জায়গা থেকে অনেক অনেক দূরে চলে এসেছে।যার ফলে এখন সরকারবিরোধী আন্দোলন-সংগ্রামে লোক খুঁজে আনতে হয়। কিন্তু তৃণমূল পর্যায়ে বিএনপির প্রতি জনগণের অকুণ্ঠ সমর্থন আছে। তারপরও কেন আজকের দেশে গণতন্ত্র নেই?কারন বিএনপি নেতাদের কোমর ভেঙ্গে গিয়েছে।কারণ বিএনপি এখন দালালে ভরে গিয়েছে।কারণ বিএনপি আজ শহীদ জিয়ার আদর্শকে কবর দিয়ে ভাই নীতি নিয়ে চলছে। দলের কোনো ভুল সিদ্ধান্তে আজকে আওয়াজ ওঠানোর মতো কেউ নেই। কারণ যখন দলের ভেতরে দল চর্চার মাধ্যমে রাজনৈতিক প্রজ্ঞা প্রকাশের সুযোগ থাকে না তখন তো তাকে আর দল বলা যায় না অন্তত রাজনৈতিক দল বলা যায় না।

আর বিএনপি’র এহেন কর্মকান্ডের ফসল হলো সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন নিয়ে বিএনপির বিশেষ সম্পাদক রিপন ভাইয়ের আক্ষেপের সুরে বলা কথাগুলো। আর এভাবেই অনেকগুলো ভুলের সমারোহে আজকের সরকার এখনো বহাল তবিয়তে গদিতে পায়ের উপর পা তুলে বসে পরবর্তী বার ক্ষমতায় আসার ছক আঁকছে।

লেখক:এম.এম.এইচ শান্ত