পূর্ণ মন্ত্রী হয়েই ‘বঙ্গবন্ধুর কাছে’ নারায়ণ চন্দ্র

পূর্ণ মন্ত্রী হয়েই ‘বঙ্গবন্ধুর কাছে’ নারায়ণ চন্দ্র

naraonবর্তমান সরকারের মন্ত্রিসভায় প্রতিমন্ত্রী হিসেবে চার বছর দায়িত্ব পালনের পর মন্ত্রী হয়েছেন নারায়ণ চন্দ্র চন্দ। আর পূর্ণ মন্ত্রী হওয়ার শপথ গ্রহণের পর পর বঙ্গভবন থেকে তিনি ছুটে গেছেন তার রাজনৈতিক গুরু বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ধানমন্ডি ৩২ নম্বরের বাসভবনে। এই ভবনের সামনে স্থাপিত বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানান তিনি।

শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে মৎস্য মন্ত্রণালয়ে প্রতিমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালনের বিষয়টি তুলে ধরে তুলে ধরে নারায়ণ চন্দ্র বলেন, ‘আমরা মৎস্য উৎপাদনে স্বয়ংসম্পূর্ণ হয়েছি। অল্প দিনের মধ্যেই এর আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেবো। মাছে আমরা বিশ্বে চতুর্থ হয়েছি এটাকে সাসটেইনেবল (টেকসই) করতে হবে। প্রাণিসম্পদেও আমরা অনেক দূর এগিয়েছি। মাংস উপাদন সাত গুণ বেড়েছে।’

পূর্ণ মন্ত্রী হিসেবে মন্ত্রণালয়কে কীভাবে সামনে এগিয়ে নেবেন- জানতে চাইলে নারায়ণ চন্দ্র বলেন, ‘আমরা মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ সেক্টরে পরিকল্পনা অনুযায়ী যেটুকু এগিয়েছি সেটাকে ধরে রাখব এবং নতুন করে অনন্য যে সব কার্যক্রম করা দরকার সেটা ১১ মাসের মধ্যে করার চেষ্টা করব।’

‘মন্ত্রণালয়ের পূর্ণ দায়িত্ব পেয়ে আমি আমার কর্মকর্তাদের নিয়ে পলিসি তৈরি করব এবং গতিটাকে আরও বেশি দ্রুত করার চেষ্টা করব।’

সমুদ্র সম্পদ আহরণসহ সংরক্ষণে বিভিন্ন গবেষণা ও সুনিদিষ্ট ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানান মন্ত্রী।

নারায়ণ চন্দ্র চন্দ আরও দুই জনের সঙ্গে মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টায় বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের কাছে মন্ত্রী হিসেবে শপথ নেন।

এসময় সরকার প্রধান শেখ হাসিনাও অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। অন্য যে দুই জন মন্ত্রী এবং একজন প্রতিমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেন তারা হলেন বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেসের (বেসিস) সভাপতি মোস্তাফা জব্বার, লক্ষ্মীপুরের প্রবীণ আওয়ামী লীগ নেতা এ কে এম শাহজাহান কামাল এবং রাজবাড়ীর সংসদ সদস্য কাজী কেরামত আলী।

এই চারজনকে নিয়ে শেখ হাসিনার মন্ত্রিসভার সদস্য সংখ্যা দাঁড়াল ৫৩। তাদের মধ্যে ৩৩ জন মন্ত্রী, ১৭ জন প্রতিমন্ত্রী এবং দুইজন উপমন্ত্রী।

৭২ বছর বয়সী নারায়ণ চন্দ্র চন্দ খুলনা-৫ আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন তিনবার। ২০১৪ সালে আওয়ামী লীগ টানা দ্বিতীয় দফায় সরকার গঠন করলে তিনি প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব পান।

গত বছরের শেষ দিকে এসে ১৬ ডিসেম্বর মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী ছায়েদুল হকের মৃত্যু হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Notice: ob_end_flush(): Failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/purebd/public_html/aaa/shadhinkantha.com/wp-includes/functions.php on line 5373