ঢাকার কাছেই আনন্দময় নৌভ্রমণ

boatঢাকার কাছেই পরিশুদ্ধভাবে শ্বাস নেওয়ার সুযোগ রয়েছে। রয়েছে শুদ্ধ বাতাসে গা ভাসানোর সুযোগ।

শুধু পথ না জানার কারণেই হয়ে ওঠে না এটা। ঢাকার কাছেই একদিনে রোমাঞ্চকর একটি ভ্রমণ সেরে আসতে পারেন। যা আপনার মন অনেকটাই রিফ্রেশ হয়ে যাবে।

বালু নদীর শুদ্ধ বাতাসে ২৫ মিনিট

ঢাকার বাড্ডা এলাকার বেরাইদ থেকে রূপগঞ্জের ইছাপুরা পর্যন্ত ২৫ মিনিটের একটি নৌভ্রমণ। বালু নদীর ওপরে ট্রলার যোগে এই ভ্রমণ আপনাকে অনেকটাই সুখকর ও আনন্দময় সময় উপহার দেবে। ভ্রমণ টা আবার উলটো দিকেরও হতে পারে। যেমন রূপগঞ্জের ইছাপুরা থেকে বাড্ডার বেরাইদ এলাকা পর্যন্ত। যেটাই হোক। খুবই অল্প পয়সায় ভ্রমণটা হবে আনন্দদায়ক।

কত খরচ পড়বে? চিন্তার কিছু নেই। ট্রলারে একজনের ভাড়া নেবে মাত্র ২০ টাকা। তবে এই রুটে শিক্ষার্থীদের জন্য ‘স্টুডেন্ট ভাড়া’র সুযোগও রয়েছে। এক্ষেত্রে ভাড়া পড়বে ১০ টাকা।

কীভাবে যাবেন?

ঢাকার যে কোনো স্থান থেকে গুলশানের নতুন বাজার এলাকায় চলে আসবেন। নতুন বাজার থেকে ১০০ ফিট রাস্তার মোড়ে দাঁড়িয়ে (গুলশান যাওয়ার উল্টোদিকের রাস্তা) ব্যাটারি চালিত অটোরিকশাযোগে সোজা বালু নদী ঘাট। এই এলাকার নামই বেরাইদ। ব্যাটারি চালিত অটোরিকশা ভাড়া ২০ টাকা। বেরাইদ একটি গ্রামগঞ্জের হাট এলাকা। সময় থাকলে ঘুরে দেখতে পারেন। এরপর ইছাপুরাগামী ট্রলারে উঠে পড়ুন। মাত্র ৮ জন যাত্রী হলেই ট্রলার স্টার্ট দিয়ে দেবে। এরপর ২৫ মিনিট ভ্রমণ। এই ভ্রমণটা আপনাকে যান্ত্রিক অবসাদ থেকে কিছুটা মুক্তি দিতে পারে। ইছাপুরায় নেমে চাইলে মিষ্টি খেতে পারেন। এখানের মিষ্টী প্রসিদ্ধ। ইছাপুরায় নদীর ঘাটেই রয়েছে অসংখ্য ব্যাটারি চালিত অটোরিকশা। খিলক্ষেতের ব্যাটারি চালিত অটোরিকশায় উঠে পড়ুন। ভাড়া নেবে ২০ টাকা। সিনেওজিও রয়েছে। সেক্ষেত্রে ভাড়া নেবে ৩০ টাকা। খিলক্ষেতে নেমে বাসায় চলে যান।

মোট খরচ ৬০ টাকা

নতুন বাজার থেকে বেরাইদ পর্যন্ত ব্যাটারি চালিত অটোরিকশায় ভাড়া নেবে ২০ টাকা। এরপরে ট্রলারে ভাড়া নেবে ২০ টাকা। ট্রলার থেকে ইছাপুরায় নেমে খিলক্ষেত আসতে ব্যাটারি চালিত অটোরিকশায় ভাড়া নেবে ২০ টাকা।