চট্টগ্রামে এসএসসি পাস ‘ডাক্তার’ আটক

docচট্টগ্রামে এসএসসি পাশ এক ডাক্তারের সন্ধান মিলেছে। রাসেল কান্তি নাথ ওরফে আর কে নাথ নামে এ কথিত ডাক্তার দিব্যি চেম্বার সাজিয়ে নিয়মিত রোগী দেখে আসছিলেন। বুধবার দুপুরে মহানগরীর বাকলিয়া থানাধীন সৎ সঙ্গ সরণী, বাস্তহারা এলাকায় একটি ফার্মেসীতে অভিযান চালিয়ে এ ভুয়া ডাক্তারকে হাতে নাতে আটক করেছে জেলা প্রশাসন পরিচালিত ভ্রাম্যমান আদালত। পরে তার থেকে মুচলেকা এবং ১০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করে প্রথম বারের মত ছেড়ে দেয় আদালত।

আদালত পরিচালনাকারী জেলা প্রশাসনের ম্যাজিষ্ট্রেট রুহুল আমীন জানান, ডাক্তারী না পড়ে শুধু এসএসসি পর্যন্ত লেখা পড়া করে এ তরুণ ডাক্তার সেজে দীর্ঘদিন ধরে মানুষকে ধোকা দিয়ে আসছে। ভিজিটিং কার্ডে সে নিজের নামের পার্শ্বে এম এল এ এফ (ঢাকা) এবং মা ও শিশু রোগ প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত লিখে প্রতারণার মাধ্যমে নিয়মিত রোগী দেখছে। গোপন খবরের ভিক্তিতে আজ অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করে জরিমানা আদায় করা হয় এবং ভবিষ্যতে আর এ ধরণের প্রতারণা করবে না মর্মে মুচলেকা নেয়া হয়।

মুচলেকায় সে নিজ হাতে লিখেছে, আমি রাসেল কান্তি নাথ, পিতা সুনিল চন্দ্র নাথ, ঠিকানা- নীলবাগ হাউজ, বাস্তহারা, বাকলিয়া এই মর্মে মুচলেখা প্রদান করিতেছি যে, আমার কোন ডাক্তারী ডিগ্রী না থাকা সত্বেও ডা. পদবী ব্যবহার করে আইন লংঘন করেছি। এটা প্রতারণার সামিল, আমি মানুষের সাথে প্রতারণা করেছি, আসলে আমি এস এস সি পাশ, আমি গত ৩/৪ বছর আগে কক্সবাজার জেলার কলাতলী মোরে অবস্থিত ১টি প্রতিষ্ঠান থেকে এম এল এ এফ নামক ৬ মাস মেয়াদী ১টি প্রশিক্ষণ নিয়েছি। উক্ত প্রতিষ্ঠানের নাম মনে করতে পারছি না। আমার ভিজিটিং কার্ডে জেনারেল প্র্যাকটিশনার কথাটা ভুল।

আমার ভিজিটিং কার্ডে মা ও শিশু রোগে প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত লেখা কথাটা ভুয়া। আমি এই অন্যায় কর্মকান্ডের জন্য ক্ষমা প্রার্থনা করছি এবং অঙ্গিকার করছি আমি আর ডা. শব্দ লিখে প্রতারণা করবো না, যদি করি, তাহলে যে কোন শাস্তি মাথা পেতে নেব।