কি আছে ইয়াকিন পলিমারে ??

screenshot_4গতকাল  বৃহস্পতিবার প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের  (আইপিও) মাধ্যমে আসা ইঞ্জিনিয়ারিং খাতের কোম্পানি  ইয়াকিন পলিমার দেশের উভয় পুঁজিবাজারে একসাথে লেনদেন শুরু করেছে।

কোম্পানিটি প্রথম দিনেয় লেনদেন চমক দেখিয়েছে। দুই স্টক এক্সচেঞ্জ মিলিয়ে বৃহস্পতিবার কোম্পানিটির  ১ কোটি ৯ লাখ ৯০ হাজার ৭০৩ টি শেয়ার কেনাবেচা হয়।

এর মধ্যে ডিএসইতে ৮৯ লাখ ৪২ হাজার ১৯৮টি শেয়ার এবং সিএসইতে ২০ লাখ ৪৮ হাজার ৫০৫টি শেয়ারের লেনদেন হয়।

কি আছে ইয়াকিন পলিমারে ?

কেন বিনিয়োগকারীরা এত আগ্রহ দেখিয়েছে তালিকাভুক্ত নতুন কোম্পানি ইয়াকিন পলিমারের শেয়ারে। তা বিশ্লেষণ করলে নিম্নের তথ্য বেরিয়ে আসে।

১. শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস)

কোম্পানির দেখানো ৯ মাসের  হিসাবে  আইপিওতে আসার আগে তাদের ইপিএস ছিল ১ টাকা ২ এবং  আইপিওতে শেয়ার সংখ্যা বাড়ার কারনে তা এখন হয়েছে শুধু ৬৭ পয়সা।

৩০ জুন, ২০১৫ সমাপ্ত হিসাব বছরের কোম্পানিটির   ইপিএস ছিল ১ টাকা ৯৮ পয়সা। যা আইপিও পরবর্তী হসাবে আসে মাত্র ৯৩ পয়সা।

এ হিসাব অনুজায়ে ৩০ জুন, ২০১৬ সমাপ্ত বছর শেষে ইয়াকিন পলিমারের ইপিএস হয় মাত্র ৮৯ পয়সার কিছু বেশি।

২. শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভি)

৩০ জুন, ২০১৫ হিসাব বছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ১৪ টাকা ৬১ পয়সা।

কিন্তু আইপিওতে শেয়ার সংখ্যা বাড়ার কারনে তা এখন ১৩ টাকা ৫ পয়সা হয়েছে।

এমন অবস্থায় কোম্পানি যদি শেষ ৩ মাসে কমপক্ষে ৩৩ পয়সা আয় না করতে পারে সে কোম্পানিটির ১০ শতাংশ লভ্যাংশ প্রদান করা কঠিন হয়ে দাড়াবে।

যেখানে কোম্পানিটি প্রতি ৩ মাসে আয় ২২ পয়সার কিছু বেশি দেখিয়ে আসছে সেখানে শেষ ৩ মাসে কমপক্ষে ৩৩ পয়সা আয় করতে হবে ইয়াকিন পলিমারের। তবে তারা এনএভি থেকে লভ্যাংশ দিতে পারবে।

দিন শেষে কোম্পানিটির পি রেশিও দাড়ায় ৩৪.১৯ তে।

৩. শেয়ার বিন্যাস

আইপিওতে আসার পর ইয়াকিন পলিমারের বেশির ভাগ শেয়ার দেখা যাচ্ছে সাধারন বিনিয়োগকারীর হাতে এবং সব চেয়ে কম সংখ্যক শেয়ার মালিক পক্ষের কাছে।

screenshot_3  যেহেতু কোম্পানির জুন ৩০, ২০১৬ তে সমস্ত বছরের হিসাব শেষ হয়েছে সেহেতু, যে কোন  সময় তার লভ্যাংশের ঘোষণা আসতে পারে। এ ঘোষণাতে কোম্পানিটি কমপক্ষে ১০ শতাংশ লভ্যাংশ না দিলে “A” ক্যাটাগরিতে আসতে পারবে না।

উল্লেখ্য, কোম্পানিটি নিয়ম অনুজায়ে বাজারে প্রথমে  “N” ক্যাটাগরিতে লেনদেন শুরু করেছে।

সুত্রঃ ডিএসই